সোনালী ব্যাংক লোন যেভাবে সহজে নিবেন | Sonali bank loan system

আসসালামু আলাইকুম আশা করছি সকলে ভালো আছেন, আপনারা যারা সোনালী ব্যাংক লোন নিতে চাচ্ছেন বা বিস্তারিত জানতে চাচ্ছেন আজকের এই পোস্টটি তাদের জন্য।

আজকের পোস্টে আপনি জানতে পারবেন সোনালী ব্যাংক লোন সম্পর্কে বিস্তারিত, এছাড়াও সোনালী ব্যাংক লোন ফরম কিভাবে আপনি সংগ্রহ করবেন, এবং আরো জানতে পারবেন সোনালী ব্যাংক স্যালারি লোন।,সোনালী ব্যাংক লোন সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য, সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন সর্বশেষ যে বিষয়টি জানতে পারবেন তা হচ্ছে সোনালী ব্যাংক লোন নেওয়ার সঠিক নিয়ম।

অর্থাৎ আপনাদেরকে এতোটুকু বলতে পারি সোনালী ব্যাংক থেকে আপনি লোন নিতে হলে বা লোন সম্পর্কে জানতে হলে আজকের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ আপনাকে পড়তে হবে। আমি আপনাদেরকে এতোটুকু বলব আজকের এই পোস্ট পড়ার পর সোনালী ব্যাংক লোন সম্পর্কিত কোন
ধরনের কোন প্রশ্ন আর আপনার মনে থাকবে না। তো চলুন কথা না বাড়িয়ে আমরা সোনালী ব্যাংক লোন সম্পর্কিত সকল খুঁটিনাটি বিষয় জেনে নেই।

সোনালী ব্যাংক লোন এর প্রকারভেদ?

প্রথমে আমরা জানবো সোনালী ব্যাংকে কি ধরনের লোন তারা গ্রাহকদের দিয়ে থাকে।অর্থাৎ সোনালী ব্যাংকের লোন কত প্রকার? সোনালী ব্যাংক হতে আপনি চাইলে দুটি ভিন্ন উপায়ে লোন গ্রহণ করতে পারবেন।

.একটি হচ্ছে পার্সোনাল লোন অর্থাৎ ব্যক্তিগত লোন এটাকে বলে থাকা হয়। পার্সোনাল লোন আপনি কিন্তু বড় অংকের অ্যামাউন্ট এই সোনালী ব্যাংক থেকে নিতে পারবেন।

.শিক্ষক বা অন্যান্য পেশার ব্যক্তিদের জন্য লোন। অর্থাৎ এই লোনটি ছোট অংকের অ্যামাউন্টে আপনি সোনালী ব্যাংক থেকে নিতে পারবেন।

ইনশাল্লাহ পরবর্তীতে আমি নিচের দিকে আপনাদেরকে এই দুটি বিষয় কিভাবে লোন নিবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত জানাবো।

সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন

আপনাদেরকে সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন নিতে কি কি বিষয় জানতে হয় এবং এই সম্পর্কে বিস্তারিত নিচে আলোচনা করছি।সোনালী ব্যাংক থেকে যারা সর্বোচ্চ টাকা বা বড় অংকের অ্যামাউন্ট লোন নিতে চায় তাদের জন্য সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন।

সোনালী ব্যাংক পার্সোনাল লোন এর মাধ্যমে আপনি যেকোনো ধরনের বড় ব্যবসা এন্টারপ্রাইজ ধরনের খাতে আপনি এই লোনের টাকাটি ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ ব্যবসায়িক খাতে যে ধরনের বড় লোন প্রদান করে থাকে সেটি সোনালী ব্যাংকের পার্সোনাল লোন।

তো চলুন এই লোন সম্পর্কে সময়সীমা, কত টাকা দিয়ে থাকে বিস্তারিত জেনে নেই

সোনালী ব্যাংক লোনের লিমিট

অনেকেই চিন্তা করে পার্সোনাল এই সোনালী ব্যাংকের লোন কত টাকা পর্যন্ত এই ব্যাংকটি লোন প্রদান করে থাকে? একজন লোন গ্রাহককে সর্বনিম্ন ৫০ হাজার টাকা থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত সোনালী ব্যাংক লোন প্রদান করে থাকে।

  • ·
    এই লোন গ্রহণ করার জন্য আপনাকে অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।
  • ·
    এই লোন আবেদন করার জন্য অবশ্যই আপনার বয়স সীমা ১৮ বছরের উর্ধ্বে হতে হবে।
  • ·
    অর্থাৎ অন্যান্য ব্যাংকের ক্ষেত্রে যে ধরনের শর্ত থাকে সে সকল বিষয় আপনাকে অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

সোনালী ব্যাংক লোন সিকিউরিটি

  • ·
    সোনালী ব্যাংক থেকে আপনি এই লোন নিতে হলে আপনি যদি ছেলে মানুষ বা পুরুষ উদ্যোক্তা হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনাকে এই লোনের ফি বা জামানত হিসেবে পাঁচ লক্ষ টাকা সোনালী ব্যাংকে অগ্রিম দিতে হবে।
  • ·
    সোনালী ব্যাংক থেকে আপনি এই লোন নিতে হলে আর আপনি যদি একজন নারী উদ্যোক্তা হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে এই লোন এর ফি বা জামানত হিসাবে ১০ লক্ষ টাকা দিতে হবে।

সোনালী ব্যাংক লোন পরিশোধের সময়সীমা

প্রত্যেকটি ব্যাংকেরই লোন পরিশোধের একটা সময়সীমা থাকে। আর এই সোনালী ব্যাংকের লোন পরিষদের সময়সীমা হচ্ছে

যে ব্যাক্তি এই সোনালী ব্যাংকের লোন এই স্কিমাটি গ্রহণ করবে। তাকে সর্বোচ্চ পাঁচ বছর পর্যন্ত পরিশোধের সময়সীমা দেওয়া হবে। অর্থাৎ সোনালী ব্যাংকের লোন পরিশোধ সময় সীমা হচ্ছে সর্বোচ্চ পাঁচ বছর। এবং প্রতিমাস মাসিক কিস্তি আকারে মিলন পরিশোধ করতে হবে।

সোনালী ব্যাংক লোন শিক্ষক এবং চাকুরীজীবীদের জন্য

সোনালী ব্যাংকের শিক্ষক এবং চাকরিজীবীদের জন্য কিভাবে লোন পাবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত আমি নিচে দিয়ে দিচ্ছি। আপনি যদিও অল্প বেতনের চাকরিজীবী হয়ে থাকেন অথবা শিক্ষক হয়ে থাকেন তাহলে আপনি সোনালী ব্যাংকের এই প্যাকেজটি থেকে লোন নিতে পারবেন।মূলত এই লোন প্রকল্পটা সোনালী ব্যাংকের যারা কম আয়ের বেতনের চাকুরীজীবী অর্থাৎ শিক্ষক রয়েছে তাদের জন্য।

সোনালী ব্যাংকে চাকরিজীবীদের লোন পরিমাণ

  • ·
    যেকোনো ব্যক্তি সর্বনিম্ন হাজার থেকে লক্ষ টাকা পর্যন্ত নিয়ে নিতে পারবে।
  • ·
    অবশ্যই লোন গ্রহণকারীকে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।
  • ·
    অবশ্যই লোন গ্রহণকারীকে ১৮ বছর পূর্ণ হতে হবে।

সোনালী ব্যাংক চাকরিজীবীদের লোনের সুদের হার

সোনালী ব্যাংক থেকে চাকরিজীবীরা এই লোন নিতে হলে আপনাকে সুদের হার দিতে হবে ১২ শতাংশ।

সোনালী ব্যাংকের চাকরিজীবীদের লোন পরিশোধের সময়সীমা

এই লোন গ্রহণকারীকে ১২ মাস থেকে ৩৬ মাসের মধ্যে লোন পরিশোধ করতে হবে।

সোনালী ব্যাংকলোন আবেদন করার নিয়ম

সোনালী ব্যাংকের লোন আবেদন করার পূর্বে নিম্নলিখিত এই কাগজপত্র গুলি আপনার থাকতে হবে। অর্থাৎ সোনালী ব্যাংকের লোন নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট।

  • ·
    আবেদন করে নিজের দুই কপি ছবি এবং তার ভোটার আইডি কার্ডের দুই কপি ফটোকপি প্রয়োজন হবে।
  • ·
    জামিন্দারের দুই কপি ছবি এবং তার আইডি কার্ডের দুই কপি ফটোকপি দিতে হবে।
  • ·
    আপনি যদি বিবাহিত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার স্ত্রী দুই কপি ছবি এবং তার ভোটার আইডি কার্ডের কপি দিতে হবে।
  • ·
    আপনাকে কিছু স্ট্যাম্প কিনতে হবে।
  • ·
    আপনার সঞ্চয় অর্থাৎ আপনার কি রয়েছে তার একটি নথি প্রমাণ প্রদান করতে হবে।
  • ·
    সর্বশেষ আপনার এবং আপনার গ্যারান্টরের বা জামিনদারের ফাঁকা ব্যাংকের চেক জমা দিতে হবে।

আপনি লোন আবেদন করার পূর্বে অবশ্যই এই বিষয়গুলি অবগত থাকবেন আর এই প্রয়োজনে কাগজপত্র আপনি রেডি রাখবেন।

সোনালী ব্যাংক লোন আবেদন করার নিয়ম হচ্ছে,
আপনি প্রথমে উপরোক্ত এই বিষয়গুলি মনস্থির করবেন যে আপনি কোন ধরনের লোন নিতে চাচ্ছেন, সেই মোতাবেক আপনি আপনার উপরের দেওয়া এই নিয়মকানুন অনুসরণ করবেন এবং কাগজপত্র গুলি রেডি করে নিয়ে সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায় চলে যাবেন। এবং সেখানে যেকোনো একটি ব্যাংক কর্মকর্তাকে জিজ্ঞেস করবেন যে আপনি লোন উত্তোলন করতে চান।

তাহলে তারাই আপনাকে লোন অফিসারের কাছে নিয়ে যাবে এবং সেখানে আপনি এই সকল বিষয় বিস্তারিত বলবেন। আর আপনার কথা এবং কাগজপত্র এবং বিষয়গুলি যাচাইবাছাই করে আপনাকে কনফার্ম করবে। এবং সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে খুব দ্রুত আপনি তার মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের ঋণ আপনি নিতে পারবেন।

আশা করছি উপরে নিয়ম অনুসরণ করে আপনি সোনালী ব্যাংকের লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

সোনালী ব্যাংকের লোন আবেদন ফরম (অনলাইন)

সোনালী ব্যাংকের লোন নেওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই সোনালী ব্যাংকের নির্দিষ্ট একটি আবেদন ফরমে আপনার সবকিছু বিস্তারিত লিখে সঙ্গে সংযুক্তি কাগজপত্র দিয়ে আবেদন করতে হবে।

তো অনেকেই কিন্তু গুগলে সার্চ করে ইন্টারনেটের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকের লোন আবেদন ফরম লিখে। কারণ যদি আপনি অনলাইনে ঘরে বসে সোনালী ব্যাংকের লোন আবেদন ফরমটি পেয়ে যান। তাহলে আপনার অনেকটা কাজই হেল্পফুল হয়ে যায়।

আপনি দুই ভাবে সোনালী ব্যাংকের লোন আবেদন ফরম আপনি সংগ্রহ করতে পারবেন।

১।অনলাইনের মাধ্যমে।

২। সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে।

অনলাইনের মাধ্যমে ফরম ডাউনলোড করতে এই লিংকটিতে ক্লিক করুন।

সোনালী ব্যাংকের পার্সোনাল লোন ফরম

সোনালী ব্যাংকের পার্সোনাল লোন ফরম অনেকের প্রয়োজন পড়ে। সোনালী ব্যাংকের পার্সোনাল লোন ফর্মো সোনালী ব্যাংকের ওয়েবসাইট থেকে আপনি ডাউনলোড দিতে পারবেন।

আমি আপনাদেরকে এই লিঙ্ক দিয়ে দিচ্ছি এই লিংক থেকে সোনালী ব্যাংকের ওয়েবসাইট থেকে পার্সোনাল লোন ফর্মটি ডাউনলোড করে নিবেন।

সোনালী ব্যাংক লোন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন উত্তর

সোনালী ব্যাংক সরকারি না বেসরকারি?

সোনালী ব্যাংক জনপ্রিয় সরকারি একটি ব্যাংক প্রতিষ্ঠান।

সোনালী ব্যাংক কোন ধরনের লোন প্রদান করে থাকেন?

  • ·
    পার্সোনাল লোন
  • ·
    ব্যবসায়িক লোন
  • ·
    শিক্ষা লোন
  • ·
    সেলারি লোন
  • ·
    কৃষি লোন
  • ·
    ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী লোন

সোনালী ব্যাংক থেকে লোন নিতে কি কি লাগে?

সোনালী ব্যাংক স্যালারি লোন পাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনার চাকরি স্থায়ী হতে হবে। এবং চাকরির কমপক্ষে তিন বছর মেয়াদকাল থাকতে হবে।

সোনালী ব্যাংক লোন কত দেয়?

সোনালী ব্যাংক স্যালারি বিল লোন ২০ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ লক্ষ টাকা পর্যন্ত দেন।

শেষ কথা:সোনালী ব্যাংক থেকে আপনারা যারা লোন আগ্রহী রয়েছেন, তারা উপরের দেওয়ায় নিয়ম অনুসরণ করবেন। তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে পরামর্শ দিব। যেকোনো ধরনের লোনের ক্ষেত্রে সরাসরি ব্যাংকের শাখায় কথা বলা সবচাইতে ভালো।

বিশেষ দ্রষ্টব্য
উপরের এই সোনালী ব্যাংক লোন সম্পর্কিত সকল তথ্য তাদের ওয়েবসাইট এবং অনলাইন থেকে সংগৃহীত, তাই যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে বা পরিবর্তন পরিবর্ধন হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

আপনার জন্য আরো 

  • ইউটিউবে – ব্লগিং,ইউটিউবিং,ফেসবুকিং থেকে ইনকাম সম্পর্কিত ভিডিও পেতে–এখানে ভিজিট করুন
  • ফেসবুকে- ব্লগিং, ইউটিউবিং, ফেসবুকিং থেকে ইনকাম সম্পর্কিত সকল ভিডিও পেতে –এখানে ভিজিট করুন

Leave a Comment